স্বীকারোক্তি — ‘এক’ - দেবজিৎ ভট্টাচার্য্য



সময়ের চাকা গড়াচ্ছে —
বিন্দু বিন্দু করে জমছে প্রচুর রক্ত —
আঁশ খোসা জমা হয়ে — তৈরী হচ্ছে একতাল অবয়ব,
এরা নাকি যন্ত্র?
এদের বুকে নাকি স্পন্দন আসবে,
এদের নিঃশ্বাস পড়বে বাতাসে,
এরা নাকি শব্দের দোহাই দিয়ে —
স্লোগান দেবে, রাজনৈতিক মিছিলে।
আবার কিছুটা সময় পরে, স্বর্গের নিয়ম ভাঙবে এরাই,
পৃথিবীটাকে নরক বানাবে এরাই।
মাতৃক্রোড়ে জন্ম নেবে — অগণিত জরাসন্ধ,
প্যান্ডেমোনিয়ামে জমা হবে — বীভৎস কিছু লাশ।
তুমি আবার চীৎকার করে প্রশ্ন করবে —
হে ঈশ্বর এটাই কি তুমি চেয়েছিলে?
আমরা আবার পালন করব একটা করে দিন,
প্রতিরাতে মুখোশ পড়ে — বিছানা বদলাবে এ যুগের লিলিথ।
আমরা ভুলে গেছি এরা যন্ত্র,
এদের মস্তিস্ক বিকল,
এটা নিয়ে আর যাই হোক — বন্ধুত্ব হয় না,
এটাই আমার স্বীকারোক্তি,
এটাই স্তাবকতার শেষ পরিচয়।


চিত্রালংকরণ - কর্ণিকা বিশ্বাস

পাঠকেরা যা পড়ছেন