মধ্যবিত্তিয় উষ্ণতায় - অমিত ঠাকুর

“শূন্য পথঘাটে রোদের তীব্র আঁচে পথিকরা ঘর্মাক্ত,
পিষছে দেহ গ্লুকোজ ঝড়িয়ে উষ্ণ হচ্ছে শ্রমিকের রক্ত।
মধ্যবিত্তের পরিধি সে এক বৃত্তের মধ্যে সীমাবদ্ধ..
কত স্বপ্ন কত ইচ্ছের তাগিদগুলো যেন আজ স্তব্ধ।
চায়ের আসর অলিতে গলিতে তর্ক করেই শেষ,
সময় গড়িয়ে কত কি হারিয়েছে এখনও কাটেনি রেশ...

মুখ ফুটেও তবু যায় না বলা ‘লোকে কি বলবে’—
খসবে চটি শূন্য দুহাতে তবু সেই পথেই চলবে!
বিগ-ব্যাঙ আজ জনসংখ্যায় ফুসছে যেন নগরী,
বাসের ভীড় অটোর লাইনে তবুও যে বাড়ছে ভুঁড়ি!

শুনেছি আগে নাকি দেশি ঘিয়ে মধ্যে জমতো মেদ।
এখন ভেজাল তেল জমছে সেথায় বৃথা ঝরছে স্বেদ!
হাঁফিয়ে উঠছি লাইনে দাড়িয়ে অটোর অপেক্ষায়,
ব্যস্ত শহর বাড়ছি আমরা কমছে কেবল অটো সংখ্যায়!
দিন গুনছি আশায় বুক বাধছি ভিজব কবে বর্ষায়?
রোজ সকালে ঝুলছি বাসে রইছি 40B এর অপেক্ষায়...”


অলংকরণ - আরনন্ট ননগ্যাও (শাটারস্টক)

পাঠকেরা যা পড়ছেন