অভিযাত্রী - বিদ্যুৎ বিহারি

অভিযাত্রী
বিদ্যুৎ বিহারি
আবার ফিরে যেতে চাই সুচনাকালের কাছে। সূর্যদীঘল সম্ভাবনা যদিও থাকবে না জানি নক্ষত্রের পরিচিতি পাল্টালে, রঙেরা বৈচিত্র্য খসালে, মনের ঘোলা পরিসরও সূচনাকে ফেরার ঠিকানা জানাবে না, জানি!
তবু পথ যদি বলে, যদি মনে হরকরা পাঠায় কখনো, যদি কাঁচগুড়ো গুলে কিশোরেরা সুতোয় লাগায়, যদি তারা লিখে রাখে জন্মভূমির ঠিকানা কাটা ঘুড়ির জামায়!
মানচিত্র পাল্টে যেতো ঠিক!
তারারা তাকিয়ে আছে অনাদিকাল থেকে
কার ছায়া বিপন্নতা জাগিয়ে রাখে? উৎসমুখে কে?
আবার উৎসে যেতে হলে কে আমাকে ঠিকানা দেবে?
কৃষ্টি?
সেও কি নক্ষত্র নয়?
সেও কি তটস্থ ছিলো? তারও কি ছিলোনা পথনির্দেশের ভয়?
সংযত সত্যের বিনয়?
গ্রহণের কালে আমি তোমাকেই জাপটে ধরে বাঁচতে চাই!
আমাকে বুকে নাও, নরম উত্তাপে গলে বিভ্রান্তিরা আরামে মজুক, ম্যাগেলান উৎসকাল অভিযানে যাবে!
অন্ধমন চশমা পাল্টালে
আমিও আর্ট ইশকুলে যাবো, মা!

পাঠকেরা যা পড়ছেন